আজ, শুক্রবার ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

সেন্ডমানি বা ক্যাশ আউট কি জায়েজ?

টুডেসংবাদ ডেস্ক ::  তাওহিদুল ইসলাম,  কানাইঘাট, সিলেট। প্রশ্ন : বিকাশের সেন্ডমানি বা ক্যাশ আউট-কতটা শরিয়তসম্মত?

উত্তর : সেন্ডমানি করে নির্ধারিত রেটে একজন তার হিসাব থেকে অন্যজনের হিসাবে নির্ধারিত পরিমাণে টাকা পাঠাতে পারে। শরিয়তের দৃষ্টিতে এতে কোনো সমস্যা নেই। ইসলামি ফিকহের দৃষ্টিতে ক্যাশ আউট হলো ‘আল ইজারাহ’-এর অন্তর্ভুক্ত। ইজারা হচ্ছে-নির্ধারিত বিনিময়ে নির্ধারিত সেবা বিক্রয় করা।

 

এক্ষেত্রে টাকা জমা/উত্তোলনকারী হচ্ছে সেবাগ্রহীতা বা ‘মুসতাজির’। আর কোম্পানি হচ্ছে সেবাদাতা বা ‘আজীর’। এজেন্ট হচ্ছে মূল সেবাদাতা বা ‘আজীরে’র প্রতিনিধি। ওকালা বা Agency Contract এর ক্ষেত্রে Agent বা প্রতিনিধি পারিশ্রমিকের বিনিময়ে তার Agency এর দায়িত্ব পালন করতে পারে।

 

আর পারিশ্রমিকের ক্ষেত্রে তা নির্দিষ্ট হওয়া জরুরি। তা নির্দিষ্ট অঙ্ক বা কোনো অঙ্কের নির্দিষ্ট হার উভয়টিই হতে পারে। যেমন ১০০ টাকায় ১০ টাকা বা ১০০ টাকার ১০ শতাংশ উভয়টিই বৈধ। সূত্র : আল আওসাত ১১/১৩১; আলমুগনী ৮/২২।

 

এনামুল হাসান,  মোড়লগঞ্জ, বাগেরহাট। প্রশ্ন : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে প্রতি বছর আমি কিছু সুদ পাই। যেমন এ বছর ৪৮ টাকা পেয়েছি। এ টাকা কী করব?

 

উত্তর : ব্যাংকের সুদ নিজ অ্যাকাউন্টে চলে এলে সেই টাকাকে সদকা করে দিতে হবে। ইসলামের নির্দেশনা হলো-যদি কারও কাছে কোনো হারাম মাল থাকে, তাহলে সে ওই মালকে তার মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেবে। যদি ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব না হয়, তাহলে গরিবদের সদকা করে দেবে। সূত্র : মাআরিফুস-সুনান ১/৩৪।

 

টুডেসংবাদডটকম/ডেস্ক/এ/

সর্বশেষ