আজ, রবিবার ৯ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

গাজীপুরে ভোট গ্রহণে ধীরগতির অভিযোগ

টুডেসংবাদ ডেস্ক :: গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন ভোটাররা। ভোটারদের সব অভিযোগ ছাপিয়ে বড় হয়ে দেখা দিয়েছে ভোট গ্রহণে ধীরগতির বিষয়টি। গাজীপুর সিটির বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে অন্তত ১০ কেন্দ্র ঘুরে এই অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভোটাররা বলছেন, সকাল থেকে দুই তিন ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও ভোট দিতে পারিনি। কোথাও ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) যান্ত্রিক ত্রুটি কোথাও মেশিনে ভোট গ্রহণে দীর্ঘসময় লেগে যাচ্ছে।

 

ভোটাররা বলছেন, কোনো কোনো বুথে দুই-আড়াই ঘণ্টায় ৫০ টি ভোটও পড়েনি।

 

৩৯ নং ওয়ার্ডের হায়দরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, পুরুষ কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ১০টায় ভোট পড়েছে মাত্র ৪২টি। এই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার জানান, ইভিএম মেশিনে ত্রুটি ছিল, তাই চালু করতে সময় লেগেছে।

 

একই কেন্দ্রে নারী কেন্দ্রেও অনেক ভোটারকে দীর্ঘসময় লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। বিভিন্ন প্রার্থীর এজেন্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নারী ভোটাররা বিশেষ করে বয়স্কদের ভোট দিতে দেরি হচ্ছে। তারা বাটনে চাপ দিতে গিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগেন।

গাজীপুর শহরের শহীদ স্মৃতি উচ্চবিদ্যালয়ে তিনটি ভোটকেন্দ্র। একেবারে মূল ফটক থেকে বুথ পর্যন্ত ভোটারদের ভিড়।

 

এ বিদ্যালয়ের একটি কেন্দ্রের ৯টি বুথের মধ্যে ৩টিতে সকালে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) সমস্যা হয়। তবে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, কয়েক মিনিটের মধ্যে টেকনিশিয়ানরা সমস্যার সমাধান করেছেন। যদিও পরে অনেক ভোটারেরই আঙুলের ছাপ না মেলায় ভোট গ্রহণে ধীরগতি দেখা যায়।

 

তবে এরই মধ্যে ভোটারের লম্বা সারি তৈরি হয়। বুথের সামনে গেট বন্ধ করে দু-চারজন করে ভেতরে ঢোকার সুযোগ দেওয়া হয়। এতে গরমে অনেক সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হয় ভোটারদের।

 

ফজলুল হক নামের এক ভোটার বলেন, দেড় ঘণ্টা ধরে গরমের মধ্যে দাঁড়িয়ে আছেন, কিন্তু লাইন এগোয়নি।

 

ভোটার ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা শঙ্কা করছেন, এই গতিতে ভোট চললে চারটার মধ্যে ভোট শেষ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

 

টুডেসংবাদডটকম/ডেস্ক/এ/

সর্বশেষ