সাড়ে ৮ কোটি টাকার বিদ্যুৎ চুরি

নিউজ ডেস্ক : বিদ্যুৎ মিটারে বিল কম দেখিয়ে সাড়ে ৮ কোটি টাকার বিদ্যুৎ চুরি করেছে নারায়ণগঞ্জের মেসার্স এইচ এইচ টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড। টানা ৮ বছর ১০ মাস ধরে কর্মকর্তাদের যোগসাজশে বিদ্যুৎ চুরি করে আসছিল প্রতিষ্ঠানটি।

দুর্নীতি দমন কমিশনের অনুসন্ধানে  বিপুল অংকের এ টাকা চুরি ধরা পড়ে। দুদকের অনুসন্ধান দলের তথ্য অনুযায়ী, সরকারি খাতে জমা না দিয়ে বিপুল অংকের এ টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এই অভিযোগে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানায় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম-এজিএমসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা (নম্বর-৪০) করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। সংস্থার উপপরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলেন : মেসার্স এইচ এইচ টেক্সটাইল মিলস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাজুল ইসলাম ঢালি, কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির (সাবেক রুপগঞ্জ জোনাল অফিস) উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) স্বদেশ চন্দ্র সাহা রায়, দিনাজপুর অফিসের এজিএম মো. নজরুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ অফিসের টেকনিশিয়ান মো. নুরুল হক এবং রূপগঞ্জ জোনাল অফিসের লাইনম্যান শাহরোম বেগ।

মামলার এজহারে বলা হয়েছে, মেসার্স এইচ এইচ টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড ২০০৫ সালের ৩ জুন তারিখে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের মিটারের (নম্বর- ২১২৫১৪৪৬) মাধ্যমে সংযোগ নেয়।  এরপর  ওই প্রতিষ্ঠানটি মিটারটিতে ৮ বছর ১০ মাস ধরে কম বিল দেখিয়ে আসছিল। বিদ্যুৎ বিল কম দেখিয়ে আলোচ্য সময়ে ৮ কোটি ৩৫ লাখ ২৪ হাজার ৭৭৬ টাকা জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করে।

পল্লী বিদ্যুৎ রূপগঞ্জ অফিসের তৎকালীন ওই সব কর্মকর্তার যোগসাজসে প্রতিষ্ঠান এমডি সরকারের এই বিপুল অংকের এ টাকা আত্মসাৎ করেছে বলে দুদকের অনুসন্ধানে পাওয়া যায়। এই অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪৬৭/৪৬৮ এবং ১৯৪৭ সালের ২ নম্বর দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

(টুডে সংবাদ/তা.সু.পি)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com ভিজিট করুন এবং

নিউজটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন