তামাক নিয়ন্ত্রণে সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে

টুডে সংবাদ ডেস্ক :

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, তামাক নিয়ন্ত্রণে পরিবার, ধর্মীয় ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সাংবাদিক, ইমাম, শিক্ষক, অভিবাবক, আলেম-ওলামারাসহ প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ও সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।
রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে শনিবার বিকালে ‘তামাকজনিত মৃত্যুরোধে সচিত্র স্বাস্থ্য সতর্কবাণী বাস্তবায়ন’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি আরো বলেন, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের পূর্ণবাস্তবায়নে স্বরাষ্ট্র, আইন, বাণিজ্যসহ সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয়কে একসঙ্গে বসে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একার পক্ষে এ আইনের পূর্ণ বাস্তবায়ন সম্ভব নয়। তবে আমিও চাই তামাক নিয়ন্ত্রণ হোক। কারণ তামাকের ফলে রোগী বেড়ে যাচ্ছে।
ধূমপান মুক্ত সমাজ গড়তে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, শিক্ষা অঙ্গনে কেন ছাত্র-ছাত্রীরা ধূমপান করবে? অভিবাকরা সতর্ক না থাকার কারণেই এটা বেশি হচ্ছে। তাই সন্তানদের ধূমপানমুক্ত রাখতে অভিবাবকদের নজরদারি বৃদ্ধি করতে হবে।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর অনেক দেশের থেকে আমাদের দেশে অনেক বেশি আইন আছে। কিন্তু আইনের বাস্তবায়ন কম। আমাদেরকে এই সকল আইন বাস্তবায়ন করতে হবে। সবাই যদি সচেতন হই, ইচ্ছা করি তাহলে এটা বাস্তবায়ন সম্ভব।
তিনি বলেন, তামাকজাত পণ্যের প্যাকেটের উপরিভাগে ৫০ ভাগ রঙ্গিন ছবি ও লেখা সংবলিত স্বাস্থ্য সতর্কবাণী বাস্তবায়ন করা হবে। তামাকজনিত মৃত্যু রোধে এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু বলেন, তামাক জাত দ্রব্যে উত্পাদনের ক্ষেত্রে কর বাড়াতে হবে।

(টুডে সংবাদ/তমাল)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com