রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, ফখরুল, খসরু ও রিজভীর বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে এনে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপি নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও রুহুল কবীর রিজভীর বিরুদ্ধে ঢাকার আদালতে মামলা করেছেন এ বি সিদ্দিকী। ঢাকার মহানগর হাকিম এ এইচ এম তোয়াহা এই অভিযোগ তদন্ত করে তেজগাঁও থানার ওসিকে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মামলার বাদী জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। মামলায় তিনি দাবি করছেন, ৪ আগস্ট বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ইলেকট্রনিকস ডিভাইস ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেছেন। সেদিন তিনি কুমিল্লায় থাকা নওমী নামের এক কর্মীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি ওই কর্মীকে বলেছেন, ঢাকা এসে লোকজন নিয়ে নেমে পড়তে।

মামলায় এ বি সিদ্দিকী দাবি করছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রুহুল কবীর রিজভীর হুকুমে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে নিরীহ ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ছাত্রদলের কর্মীরা ঢুকে পড়েছে। ঢাকার জিগাতলায় ছাত্রদলের কর্মীরা আওয়ামী লীগের অফিসে হামলা করেছে। মিরপুরে মারপিট করেছে ছাত্রদল কর্মী। ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পরিবহনে আগুন দিয়েছে। ছাত্রী ধর্ষণ ও ছাত্রছাত্রী নিহত হওয়ার গুজব ছড়িয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করেছে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ছাত্রদলের কর্মীদের ঢুকিয়ে দিয়ে এই তিন আসামি সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্র করেছেন।

মামলার ব্যাপারে বিএনপির আইনবিষয়ক সহসম্পাদক সৈয়দ জয়নাল আবেদিন মেজবাহ বলেন, মামলা হওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য এ বি সিদ্দিকী এই মিথ্যা মামলা করেছেন। এর আগে জননেত্রী পরিষদের সভাপতি সিদ্দিকী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেছেন। আদালতে সিদ্দিকীর আইনজীবী ছিলেন আবুল কালাম আজাদ।