পাকিস্তানে ১২ স্কুল জ্বালিয়েছে জঙ্গিরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের গিলগিট-বালটিস্তানে সমন্বিত হামলা চালিয়ে ১২টি স্কুল জ্বালিয়ে এবং বোমা মেরে ধ্বংস করেছে জঙ্গিরা। এগুলোর বেশিরভাগই মেয়েদের স্কুল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দিয়ামার এলাকায় ভোররাতের দিকে এ হামলা হয় বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকার পুলিশ কমিশনার আব্দুল ওয়াহিদ। লোকজন বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পেয়েছে। তবে হতাহত হওয়ার কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

পুলিশ কমিশনার ওয়াহিদ বলেন, “আমরা জানিনা এর পেছনে কারা জড়িত। এখানকার কিছু মানুষ নারী শিক্ষার বিরোধী। তবে বেশিরভাগ মানুষই নারী শিক্ষার পক্ষে। এ হামলায় কোনো একটি গোষ্ঠী বা আরো কেউ জড়িত থাকতে পারে।”

হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি। তবে এলাকাটিতে নারী শিক্ষা বিরোধী তালেবান-সংশ্লিষ্ট জঙ্গিদের সক্রিয় তৎপরতা রয়েছে।

নারী শিক্ষা ইসলাম-বিরোধী- এ মতবাদে বিশ্বাসী পাকিস্তানি তালেবান গোষ্ঠী ও এর মিত্র ইসলামি জঙ্গিরা দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল এবং উত্তরাঞ্চলে মেয়েদের স্কুলগুলোতে হামলা চালিয়ে আসছে।

উত্তর গিলগিটে দিয়ামারের গ্রামগুলোতে জ্বালিয়ে দেওয়া স্কুলগুলোর ৮ টি সরকারি স্কুল। আর চারটি প্রত্যন্ত পার্বত্য এলাকার দাতব্য সংস্থা পরিচালিত স্কুল। হামলাকারীরা বইও জ্বালিয়ে দিয়েছে বলে ‘দ্য ডন’ পত্রিকাকে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার আজমল।

স্কুলগুলোতে গড়ে ২শ থেকে ৩শ ছাত্রী ভর্তি হয়। সব মিলে ওই এলাকায় ছাত্রীসংখ্যা দাঁড়ায় প্রায় ৩ হাজার ৫শ’ জনে। এলাকাটি ২০০৪ এবং ২০১১ সালেও একই ধরনের হামলার শিকার হয়েছে।

টুডে সংবাদ/ইমানুর রহমান
প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com ভিজিট করুন,লাইক দিন এবং শেয়ার করুন।