সম্পাদকদের বিরুদ্ধে মামলা ভয় দেখানোর শামিল

অনলাইন ডেস্ক : প্রথম আলো ও ডেইলি স্টার পত্রিকার
সম্পাদকদের বিরুদ্ধে সব ফৌজদারি মামলা অবিলম্বে
প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছে নিউ
ইয়র্কভিত্তিক বেসরকারি মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান
রাইটস ওয়াচ (এইচআরডাব্লিউ)। গতকাল রবিবার
সকালে এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বাংলাদেশের প্রতি এ
আহ্বান জানায়। এতে বলা হয়, আন্তর্জাতিক মানের
সঙ্গে অসংগতিপূর্ণ মানহানি ও রাষ্ট্রদোহমূলক
ফৌজদারি আইন বাংলাদেশের বাতিল করা উচিত। মানহানির
মতো বিষয়কে কোনোভাবেই ফৌজদারি অপরাধ
হিসেবে বিবেচনা করা ঠিক নয়।
এইচআরডাব্লিউয়ের এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক
ব্র্যাড অ্যাডামস বলেন, বাংলাদেশে
শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্রগুলোর সম্পাদকদের
বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দেশের সব সংবাদমাধ্যমকে
ভয় দেখানোর সুস্পষ্ট উদ্যোগ। তিনি বলেন,
দেশের সব জাতীয় নির্বাহী কর্তৃপক্ষ ও
সংসদের প্রায় সব আসন নিয়ন্ত্রণকারী সরকারের
বিশেষভাবে মুক্ত সংবাদমাধ্যমের সুরক্ষা নিশ্চিত
করা বা বাংলাদেশের স্বৈরাচারী রাষ্ট্র হয়ে ওঠা
ঠেকাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করতে হবে।
এইচআরডাব্লিউয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে,
গতকাল সকালে এ বিবৃতি লেখা পর্যন্ত ইংরেজি
দৈনিক ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনামের
বিরুদ্ধে ৫৪টি মানহানির ফৌজদারি মামলা এবং ১৫টি
রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়েছে। অন্যদিকে বাংলা দৈনিক
প্রথম আলো, এর সম্পাদক মতিউর রহমানসহ
কয়েকজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ধর্মীয়
অনুভূতিতে আঘাত করা ও মানহানির অভিযোগে ৫৫টি
মামলা দায়ের করা হয়েছে। মানহানির প্রতিটি
অভিযোগে দুই বছর করে কারাদণ্ড ও
রাষ্ট্রদ্রোহের প্রতিটি অভিযোগে তিন বছর
করে কারাদণ্ড হওয়ার সুযোগ আছে।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, বাংলাদেশ
কর্তৃপক্ষ সরকারের সমালোচনা করা কিছু গণমাধ্যম
বন্ধ করে দিয়েছে, সম্পাদকদের কারাগারে
পাঠিয়েছে, ব্লগারদের বিচার করছে এবং
সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ
এনেছে। আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান
২০১৩ সাল থেকে কারাগারে আছেন।