তাজমহল রক্ষণাবেক্ষণে ব্যর্থ ভারত সরকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ না করতে পারলে তাজমহল বন্ধ করে দেয়া উচিত। এছাড়া কেন্দ্রীয় ও উত্তরপ্রদেশ সরকার এই সৌধকে রক্ষা করার বিষয়ে অত্যন্ত ‘অলস’। এমনই মন্তব্য করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

বিশ্বে পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় শীর্ষ কেন্দ্রগুলোর একটি তাজমহল। প্রতিদিন সেখানে প্রায় ৭০ হাজার পর্যটক যায়। সেই তাজমহলের রক্ষণাবেক্ষণের ক্ষেত্রে ভারতের সরকারের ব্যর্থতার কথা উল্লেখ করে তার সমালোচনা করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

তাজমহল রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত একটি মামলার শুনানির সময়ে শীর্ষ আদালত বলেছে, অনেকটা টিভি টাওয়ারের মতো দেখতে প্যারিসের আইফেল টাওয়ার! তবুও বছরে ৮ কোটি মানুষ তা দেখতে যান। আমাদের তাজ তার চেয়ে অনেক বেশি সুন্দর। বিদেশ থেকে বহু মানুষ শুধু এই সৌধটি দেখতেই ভারতে আসেন। যদি সঠিকভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা হত, তা হলে এত দিনে দেশের বিদেশী মুদ্রার সমস্যা সহজেই মিটে যেত।

তাজমহল রক্ষার বিষয়ে একটি রিপোর্ট জমা দিয়েছিল সংসদের স্থায়ী কমিটি। তা সত্ত্বেও কেন এখনো এই নিয়ে কোনো দৃঢ় পদক্ষেপ নেয়নি সরকার তা নিয়েও এ দিন প্রশ্ন তোলে ডিভিশন বেঞ্চ। তাজমহল রক্ষার বিষয়ে এখনো অবধি কতটা কাজ এগিয়েছে বা ভবিষ্যতে কী কী করার কথা ভাবা হচ্ছে, তা নিয়ে কেন্দ্রকে বিস্তারিত রিপোর্ট জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে কোর্ট।

সপ্তদশ শতকে মোঘল আমলে নির্মিত এই স্থাপনাটির ওপর দূষণের ক্ষতিকর প্রভাবের কারণে চলতি বছরের মে মাসে আদালত সরকারকে নির্দেশনা দিয়েছিল তাজমহলের মার্বেল পাথরের গাঁথুনির রং পরিবর্তনের বিষয়ে বিদেশিদের সহায়তা নিয়ে তা পুনরুদ্ধারের জন্য।

আদালত তখন বলে, এই ভুবন-বিখ্যাত সমাধি সৌধটির সাদা মার্বেল ও অন্যান্য উপাদান হলুদাভ রং ধারণ করেছে, তা ধীরে ধীরে বাদামী ও সবুজ রং নিচ্ছে। দূষণ, নির্মাণকাজ ও কীটপতঙ্গের বিষ্ঠা এর কারণ।

সরকারের তরফ থেকে আদালতকে জানানো হয়, তাজমহলের ভেতরে ও বাইরে দূষণ কিভাবে ঠেকানো যায় সে বিষয়ে পরামর্শের জন্য একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এছাড়া এর আশেপাশের হাজার খানেক কারখানা এরইমধ্যে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় সরকার বুধবার বেঞ্চকে জানায়, ইতোমধ্যেই তাজমহল সংলগ্ন এলাকার বায়ুদূষণের পরিমাণ পরীক্ষার ভার দেয়া হয়েছে কানপুর আইআইটিকে। চার মাসের মধ্যে এই রিপোর্ট জমা দেয়ার কথা তাদের।

তাজমহলের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া যমুনা নদীর দূষিত পানির কারণে সেখানে নানা পোকামাকড়ের আনাগোনা ও তাজমহলের দেয়ালে তাদের মলত্যাগ করার ফলে বিবর্ণ হয়ে পড়ছে দেয়াল। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা ও বিবিসি

টুডে সংবাদ/ইমানুর রহমান/জান্নাত