সুন্দরবনে কোস্টগার্ডের সঙ্গে দস্যুদের বন্দুকযুদ্ধ

বাগেরহাট প্রতিনিধি : সুন্দরবনে কোস্টগার্ড সদস্যদের সঙ্গে বনদস্যু আসাফুর বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধের ঘটান ঘটেছে। এসময় ওই বাহিনীর বাহিনীর দুই সদস্যকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বনের দাকোপ থানার কালাবগি খালে এই বন্ধুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ৩টি গোলাবারুদ জব্দ করা হয়। আটকরা হলেন-খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার কালাবগি গ্রামের আব্দুর রশিদ গাজীর ছেলে তাজেল গাজী (৩২) এবং একই গ্রামের খোদা বক্সের ছেলে জাকির সানা (৩০)। কোস্টগার্ডের গোয়েন্দা কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, দুপুরে পশ্চিম সুন্দরবনের দাকোপ থানাধীন কালাবগি খালে একদল ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিলো এমন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্টগার্ড বাহিনী পশ্চিম জোনের ওই এলাকায় প্রবেশ করে। এসময় খালের ভেতরে অবস্থানরত আসাফুর বাহিনীর সদস্যরা কোস্টগার্ড সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়লে কোস্টগার্ড সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে দস্যুরা পালানোর চেষ্টা করলে তাজেল গাজী ও জাকির সানাকে আটক করে কোস্টগার্ড। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি চালিয়ে ১টি ডাবল ব্যারেল বিদেশি বন্দুক, ২টি সিঙ্গেল ব্যারেল বন্দুক, ১২ রাউন্ড গুলি ও ৪টি অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম জব্দ করে। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আটকদের ও অস্ত্রসহ সরঞ্জামাদি দাকোপ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান কোস্টগার্ডের এই কর্মকর্তা।