নুরুল্লাপুর দরবার শরীফে ফায়েজ বৃষ্টি!

মজিবুর রহমান চিশতী : যেভাবে বৃষ্টিবর্ষণ হলে মানুষ বৃষ্টির পানিতে ভিজে যায়, একইভাবে নুরুল্লাপুর পাক দরবার শরীফে এখন ফায়েজের বৃষ্টি বর্ষণ হচ্ছে এবং মনে হচ্ছে  সে বৃষ্টিতে ভিজে পবিত্রতালাভ করছি।

১৬ মার্চ শুক্রবার মহান আউলিয়া হযরত শালাল শাহ (র) এর বংধর ফকির হযরত শাহ সুফি রবিউল আলম চিশতী (কু:ছে:আ:) এর সহধর্মীনি এবং “নুরুল্লাপুর পাক দরবার শরীফ” এর পীর সাহেব হুজুর হযরত শাহ সুফি ফকির শাহিন শাহ চিশতী (মা:জি:আ:) এর মাতার কুলখানী অনুষ্ঠানে যোগদান করে কথাগুলো বলেন, বাংলাদেশ মানবতাবাদী দল-বিএইচপি’র মহাসচিব ড. সুফি সাগর সামস্।

গত ৩১ জানুয়ারী সকালে হযরত রবিচান শাহ চিশতীর সহধর্মীনি পরলোকগমন করেন। এ কুলখানী উপলক্ষে শুক্রবার বাদ জুমা দরবার শরীফ প্রাঙ্গনে এক মিলাদ মাহফিলের অয়োজন করা হয়। পীর মাতা হুজুরের ছেলে-মেয়ে নাতি-নাতনীসহ বিভিন্ন জেলা, উপজেলা থেকে আগত দরবারের ভক্তবৃন্দ এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ প্রায় আট হাজার লোক এ অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

কুলখানীর এ মাহফিলে মুনাজাত করেন, দরবারের পীর সাহেব হুজুর হযরত শাহ সুফি ফকির শাহিন শাহ চিশতী (মা:জি:আ:)। এ সময় তিনি বলেন, “মানব সেবাই পরম ধর্ম”। এই প্রতিপাদ্য নিয়ে ৪১০ বছর পূর্বে মহান আউলিয়া হযরত শালাল শাহ (র) “নুরুল্লাপুর পাক দরবার শরীফ” প্রতিষ্ঠা করেন। এ দরবারের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো, ‘ধর্মীয় ও আধ্যাত্মিক শিক্ষার মধ্য দিয়ে আদর্শবান সৎ-শুদ্ধ মানুষ সৃষ্টি করা; যাতে ধর্মপ্রাণ মানুষ ইহকাল ও পরকালে পরম সুখ-শান্তিতে অনন্ত জীবনলাভ করতে পারেন’।