প্রতি সেকেন্ডে ৩৩২ মিটার গতির রুশ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়া নতুন এক হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। শব্দের চেয়ে দশ গুণ বেশি গতির এই ক্ষেপণাস্ত্র দুই হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। ক্ষেপণাস্ত্রটি পারমাণবিক অস্ত্র বহন করতে পারবে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে আজ রোববার এ কথা জানানো হয়। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, কিনজাল নামের ওই ক্ষেপণাস্ত্রের গতি শব্দের গতির দশ গুণ। শব্দের গতি প্রতি সেকেন্ডে ৩৩২ মিটার। সেই হিসাবে রাশিয়ার এই ক্ষেপণাস্ত্রের গতি হবে প্রতি সেকেন্ডে ৩ হাজার ৩২০ মিটার। অর্থাৎ এই ক্ষেপণাস্ত্র সেকেন্ডে তিন কিলোমিটারের বেশি পথ পাড়ি দিতে পারবে। এটি দুই হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে নির্ভুলভাবে আঘাত হানতে সক্ষম।

রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, শনিবার দেশটির দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলীয় বিমানঘাঁটিতে মিগ-৩১ জেট থেকে ওই ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়। দেশটির মন্ত্রণালয় বলছে, ক্ষেপণাস্ত্রটি নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত এক ভিডিওতে দেখা যায়, কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র যুদ্ধবিমান থেকে বের হয়ে যাচ্ছে; যার পেছন দিকে আগুন জ্বলছে।

এর আগে ১ মার্চ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বিশ্বকে তাঁর নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের খবর দেন। ওই দিন পার্লামেন্টের উভয় কক্ষে দেওয়া ভাষণে পুতিন নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির খবর নিশ্চিত করেছিলেন। বলেছিলেন, এই নতুন ক্ষেপণাস্ত্র বিশ্বের যেকোনো স্থানে আঘাত হানতে সক্ষম।

পুতিন ওই ভাষণে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের লক্ষ্যভেদের সক্ষমতা নিয়ে একটি ভিডিও গ্রাফিকস দেখান। যেখানে দেখা যায়, ওই ক্ষেপণাস্ত্র যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে আঘাত হানছে। পরে পুতিনের এ বক্তব্যের জবাবে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এটি কোনো দায়িত্বশীল আচরণ হতে পারে না।

হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র শব্দের গতির চেয়ে পাঁচ গুণের বেশি গতিতে ধাবিত হয়ে নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির প্রতিযোগিতায় লিপ্ত যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া। এই তালিকায় ফ্রান্স এবং ভারতও আছে বলে ধারণা করা হয়।

(টুডে সংবাদ/উদয়া)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com