খেলাচ্ছলে সিংহের মুখে মাথা! তারপর…

নিউজ ডেস্ক : বিপদের সঙ্গে খেলা করাই কিছু মানুষের নেশা। অ্যাডভেঞ্চারের তাগিদে বিপদকে আলিঙ্গন করেন তারা। তাতেই তাদের আনন্দ।

পার্সিয়ান গালফ অঞ্চলে ধনীদের মধ্যে বর্তমানে এক নতুন অ্যাডভেঞ্চারের নেশা দানা বেঁধেছে। তারা বাড়িতে চিড়িয়াখানা তৈরি করে সেখানে বাঘ-সিংহকে পোষ্য করে রাখা শুরু করেছেন। হুমাইদ আলবুকাইশ তাদের মধ্যে এক জন।

পার্সিয়ান এই ধনকুবেরের আয়ের উৎস অজানা, কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় তার পোস্ট করা ভিডিওগুলো এখন বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। তার সঙ্গত কারণও রয়েছে।

মধ্যপ্রাচ্যের আরও অনেক ধনকুবেরের মতোই তিনিও নিজের বাড়িতে চিড়িয়াখানায় বাঘ-সিংহকে পোষ্য করে রেখেছেন। এই সমস্ত হিংস্র জন্তু তার কাছে একেবারে শান্ত আকার ধারণ করে। তাদের সঙ্গে হুমাইদের খেলাধুলোর ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। কিন্তু কী করছেন তিনি তার পোষ্যদের সঙ্গে? তার কীর্তিকলাপ দেখে হাড় হিম হয়ে যাচ্ছে দর্শকদের।

একটি বেশ দীর্ঘায়ত ভিডিও নিজের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে পোস্ট করেছেন হুমাইদ। তাতে দেখা যাচ্ছে, নিজের পোষা সিংহের মুখের ভিতর হুমাইদ কখনও তার হাতটি ঢুকিয়ে দিচ্ছেন, কখনও বা আস্ত মাথাটাই রাখছেন সিংহের হাঁ-মুখের মধ্যে। সিংহটিও একান্ত বাধ্য পোষ্যের মতোই আঁচড়ও আসতে দিচ্ছে না তার মালিকের শরীরে।

একা হুমাইদকেই অবশ্য এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তা নয়, তার বন্ধুবান্ধবরাও বেড়াতে গিয়েছেন তার চিড়িয়াখানায়, সেই দৃশ্যও ধরা পড়েছে সেই ভিডিও’তে। বন্ধুরাও তার মতোই অসমসাহসী। তারাও হুমাইদের মতোই অনায়াসে খেলায় মেতে যাচ্ছেন মাংসাশী জন্তুদের সঙ্গে। কেবল এক তরুণীকে দেখা গিয়েছে যিনি সিংহীর আদরে ভয়ের চোটে প্রায় অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছিলেন। দেখুন সেই ভিডিও: