ফাইনাল শেষেও সেলফিতে মাতবেন সাব্বির-স্যামিরা!

স্পোর্টস ডেস্ক : সেলফি সাধারণত হাতে-ধরা ডিজিটাল ক্যামেরা বা ক্যামেরা ফোন ব্যবহার করে নেয়া হয়। বেশিরভাগ সেলফি হাত সামনে তুলে বা আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে, কখনো-কখনো সেল্ফ টাইমার ব্যবহার করেও নেয়া হয়। আর ধারণকৃত সেই ছবি প্রায়ই ফেসবুক, গুগল+, ইনস্টাগ্রাম, স্ন্যাপচ্যাট, টাম্বলার এবং টুইটারে ইত্যাদি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে শেয়ার করা হয়ে থাকে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) মঙ্গলবার এলিমিনেটর ম্যাচে স্যামি-সাব্বিররা যা করলেন, তা-ও তো সেলফি। তবে ওইসব যান্ত্রিক কোনো সহায়তা না নিয়ে অভিনব পন্থায়। শুধু হাত দিয়েই দলের আনন্দের মুহূর্তটা ধারণ করে রাখা হলো। মূলত উইকেট পতন কিংবা জয়ের অভিনব উদযাপনই দেখলো গোটা ক্রিকেট দুনিয়া। কে জানে, ক্রিকেট মাঠেও এটা আবার ‘ভাইরাল’ হয় কিনা?

সেদিন ইনিংসের শেষ দিকে চিটাগাং ভাইকিংসের প্রতিটি উইকেট প্রাপ্তির পর অদৃশ্য ক্যামেরায় দলের আনন্দের মুহূর্তটা বন্দি করে রাখেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জাগে, এমন উদযাপন কেন করলেন কিংসরা? দলকে চাঙা রাখতেই নাকি এমন উদযাপন করেছিলেন তারা। আর হঠাৎ ভাবনা থেকেই এর উদ্ভব!

এরপর দ্বিতীয় কোয়ালিফার ম্যাচে সেই একই ঢংয়ে উদযাপন। ক্যারিবিয়রা এতে বেশ পটু। সঙ্গে যোগ দিয়েছেন বাকি খেলোয়াড়রা। তারই ধারাবাহিকতায় ফাইনাল শেষেও কি সেলফিতে মাতবেন সাব্বির-স্যামিরা? এমন প্রশ্নই বিরাজ করছে ক্রিকেটমোদীদের মাঝে। ফাইনাল শেষে সেই সেলফি দেখা যাবে তখনই, ঢাকাকে হারিয়ে যদি কিংসরা শিরোপা জিততে পারেন।

মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিটে বিপিএলের চতুর্থ আসরের ফাইনালের লড়াইয়ে ঢাকা ডায়নামাইটসের মুখোমুখি হবে রাজশাহী কিংস। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে চ্যানেল নাইন ও বৈশাখী টিভি।

শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে ঢাকার উইকেট পতনের সঙ্গে সেলফি উদযাপন দেখা যেতে পারে। আবার ফাইনালটা জিতে শিরোপা নিশ্চিত করতে পারলে কিংসের সেলফি উদযাপন হতে পারে। নাকি আবার নতুন কোনো উদযাপন নিয়ে হাজির হবেন কিংসরা? কে জানে? যা-ই করুক না কেন। খেলা তো আনন্দেরই। আনন্দটা আসলেই চলে!

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com