কিউই কোচের মন্তব্য : ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া ভালো দল

46

স্পোর্টস ডেস্ক : দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে টেস্ট সিরিজ হারলেও, ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া অনেক ভালো দল বলে মন্তব্য করেছেন নিউজিল্যান্ড কোচ মাইক হেসন। আগামী রবিবার থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে নিউজিল্যান্ড। সিরিজকে সামনে রেখে কিউই কোচ আরও বলেন, “ওয়ানডেতে এক নম্বর দল অস্ট্রেলিয়া। আসন্ন সিরিজে ভালো খেলতে মুখিয়ে আছে তারা।”

সাম্প্রতিক সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়ার। শ্রীলংকার মাটিতে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হবার পর, নিজেদের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ২-১ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ হারে অসিরা। আর দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে গত সেপ্টেম্বরে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ৫-০ ব্যবধানে হারের লজ্জা পায় অস্ট্রেলিয়া। তাই সাম্প্রতিক সময়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হারের বৃত্তেই ঘুরপাক খাচ্ছে অসিরা। এমন সব দুঃস্মৃতি নিয়ে দেশের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচে চ্যাপেল-হ্যাডলি ওয়ানডে সিরিজ খেলতে নামবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

তবে আসন্ন সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকেই এগিয়ে রাখছেন নিউজিল্যান্ডের কোচ হেসন। তার মতে, “আমার মনে হয় টেস্টের চেয়ে ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া অনেক বেশি শক্তিশালী দল। দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হোয়াইটওয়াশ হলেও, ওয়ানডে দল হিসেবে তারা অনেক বেশি শক্তিশালী এবং ধারাবাহিক। দীর্ঘদিন ধরেই ওয়ানডেতে এক নম্বর দল তারা। তাই আমার মনে হয় না, টেস্টের মত ওয়ানডেতেও তারা খারাপ পারফরমেন্স করবে।”

বর্তমানে ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে অস্ট্রেলিয়া। আসন্ন সিরিজে অস্ট্রেলিয়াকে ৩-০ ব্যবধানে হারালেই র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠবে কিউইরা। তবে র‌্যাংকিং নিয়ে ভাবছেন না হেসন। তার লক্ষ্য চ্যাপেল-হ্যাডলি ট্রফি ধরে রাখা, “গেল দু”বার আমরা চ্যাপেল-হ্যাডলি ট্রফি জিতেছি। এটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অস্ট্রেলিয়া আমাদের চেয়ে শক্তিশালী দল এবং তাদের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ জয় অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তারপরও যদি আমরা র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি করতে পারি, তবে তা আমাদের জন্য অনেক ভাল কিছু হবে।”

আসন্ন ওয়ানডে সিরিজে নিউজিল্যান্ড দলে দুটি নতুন মুখ- পেসার লোকি ফার্গুসন ও স্পিনার টড অ্যাস্টল। বল হাতে ঘন্টায় ১৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারেন ফার্গুসন। এমনকি ঘন্টায় ১৫০ কিলোমিটারে গতিতে বল করার নজিরও তার রয়েছে। তাই ফার্গুসনকে দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং অর্ডারে চমক দেখাতে চান হেসন।

তিনি বলেন, “এডাম মিলনে সিরিজটি খেলছে না। তার জায়গা দলে নতুন মুখ ফার্গুসন। তাকে নিয়েই আমরা পেস অ্যাটাক সাজাবো। ইনজুরির জন্য শেষ দুই মৌসুমে খেলতে পারেনি সে। তবে সে খুবই শক্তিশালী বোলার এবং দ্রুত গতিতে বল করতে পারে।”

ইনজুরির কারণে মিলনের পাশাপাশি মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান, জর্জ ওর্য়াকার ও কোরি এন্ডারসন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলতে পারছেন না।

সিডনিতে আগামী ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। পরের দু”টি ওয়ানডে হবে ৬ ও ৯ ডিসেম্বর। ভেন্যু যথাক্রমে ক্যানবেরা ও মেলবোর্ন।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com