যুক্তরাষ্ট্রে দাবানলে ৭ জনের প্রাণহানি

tennessee

নিউজ ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে একটি পার্বত্য পর্যটন এলাকায় দাবানলে সাত জনের প্রাণহানি এবং কয়েকশ স্থাপনা বিধ্বস্ত বা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়া হাজার হাজার মানুষকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি বৃহস্পতিবার জানায়, টেনেসির পূর্বাঞ্চলে প্রায় এক দশকের ভয়াবহ খরায় শুকিয়ে যাওয়া গাছপালা ও প্রবল বাতাসের কারণে দাবানল দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। এতে ওই এলাকায় দুটি পর্যটন শহর হুমকির মুখে পড়েছে।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে মার্কিন গণমাধ্যম নক্সভিলা নিউজ সেনটিনেল জানায়, দাবানলে সাত জনের প্রাণহানি হয়েছে। তবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

এদের মধ্যে একটি বাড়ি থেকে তিন জন, একটি পুড়ে যাওয়া হোটেল থেকে একজন এবং পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে তিন জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া ওই এলাকার একটি হাসপাতালে ৪৫ জনের চিকিৎসা চলছে।

পর্যটন কেন্দ্র পিজিয়ন ফোর্জে অবস্থিত সুপরিচিত থিমপার্ক ডলিউডের সদর দরজা আগুনে পুড়ে গেছে। সঙ্গীত তারকা ডলি পার্টন এ পার্ক প্রতিষ্ঠা করেন।

দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের গাটিনবরা শহর কর্তৃপক্ষ বাধ্যতামূলক অপসারণ সতর্কতা তুলে নিয়েছে। তবে সেখানে কিছু বিধিনিষেধ এখনও বহাল আছে।

পিজিয়ন ফোর্জ ও গাটিনবরা শহর দুটি সেভিয়ার কাউন্টিতে অবস্থিত। সেভিয়ার কাউন্টির মেয়র ল্যারি ওয়াটারস বলেন, চলতি সপ্তাহে ৭শ’ বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে গেছে।

কেবল গাটিনবরা থেকেই ১৪ হাজারেরও বেশি বাসিন্দা ও পরিদর্শকদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

টেনেসির কৃষি বিভাগ বুধবার জানিয়েছে, ২৬টি সক্রিয় দাবানল রাজ্যের প্রায় ১২শ’ একর এলাকা পুড়িয়ে দিয়েছে।

টেনেসির জরুরী ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানায়, এ এলাকায় বিমান চলাচলে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে এবং গাছ ও বিদ্যুতের লাইন পড়ে অসংখ্যা রাস্তাঘাট বন্ধ বা সেখানে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে গতরাতে কমপক্ষে আটটি এলাকায় টর্নেডোসহ ঝড়ো হাওয়া বয়ে গেছে। এতে কমপক্ষে দুই জনের প্রাণহানি হয়েছে। (টুডেসংবাদ/এআরএ)