সে দিন তুমি হাসোনি

1

সে দিন তুমি হাসোনি

মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বাবু

সকালটা স্নিগ্ধ ছিলো
মৃদু হাওয়া বইছিল নিঝুম রাত্রি শেষে
বাড়ির অদূরে, খালের ওপারে
গাছের মগ ডালে কোকিল ডাকছিলো
ঘুম ভেঙে উঠেছিলো সুর্য্য।

সব ঠিক ছিলো
অপরুপ রুপের প্রকৃতি সে দিন হাসেনি,
আমিও ছিলাম বিষন্নতায়
ধরণীর বুক থেকে হতাশায় চেয়েছিলাম মুক্তি ,
কেনো, মনে আছে কি তোমার?
সে দিন তুমি হাসোনি,তাই প্রকৃতি হাসেনি।

অভিযোগের সেই রাত,অনুযোগের সেই রাত
প্রতিবাদের সেই রাত ,ভুলে ভরা সেই রাত
অস্ফুট অশ্রুর সেই রাত ,নির্ঘুম সেই রাত ,
জীবন যুদ্ধে পরাজিত সৈনিকের বিধস্ত রাত ,
একাকী উদ্ভ্রান্তের মতো হেঁটেছিলাম
অচেনা অজানা পথে খুঁজেছিলাম,
কিছু প্রশ্নের উত্তর,পাইনি।

প্রভাতে তোমার পাশে দাঁড়ালাম
দেখলে ভোরটাকে,দেখলে আকাশটাকে
এক পলক দেখলে আমায়,
নিশব্দে ঝরিয়ে দিলে মুক্তোর দানা,
খপাস করে মুঠো বন্দী করে
পান করতে চেয়েছিলাম অশ্রু ফোঁটা,
পারিনি,তুমি হাসোনি, প্রকৃতি সে দিন হাসেনি।

সে দিন মনে করে আজোও কাঁদি
দুর্ভাগ্যের সেই রাত ,সব ঠিক ছিলো কিন্তু
অপরুপ রুপের প্রকৃতি সে দিন হাসেনি,
তুমি হাসোনি ,প্রকৃতি সে দিন হাসেনি,
শুভ্র সতেজ সুন্দর সকালে হটাৎ মনে পড়লেই
প্রকৃতি হাসেনা, কারন সে দিন তুমি হাসোনি।

সিঙ্গাপুর ,৩০-১১-২০১৬ ইং