স্কুলে যে খাবার খায় বিশ্বের নানা দেশের শিশুরা!

83

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বিশ্বের নানা দেশের শিশুদের নিজস্ব ধরন অনুযায়ী স্কুলে পুষ্টিকর খাবার পরিবেশন করা হয়। এ খাবারগুলো যেমন শিশুদের পুষ্টি চাহিদা মেটায় তেমন স্বাভাবিকভাবেই সুস্বাদু হয়। এ লেখায় তুলে ধরা হলো বিশ্বের নানা দেশের স্কুলশিশুদের তেমন খাবারের কথা। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ব্রাইট সাইড।
ইরান
আইন অনুযায়ী ১৪ বছর বয়স পর্যন্ত সব শিশুই স্কুলে এক কাপ দুধ, পেস্তা বাদাম, তাজা ফলমূল ও বিস্কুট পায়। তবে প্রায়ই মায়েরা শিশুদের টিফিন রেডি করে দেয়। এতে ভাত, টমেটো ও ভেড়ার মাংসও থাকতে পারে।
দক্ষিণ কোরিয়া
স্কুলের শিশুদের সারা বিশ্বের অন্যতম সেরা খাবার পরিবেশন করে দক্ষিণ কোরিয়া। এত থাকে দুটি বড় ভাগে ভাত ও সুপ। এছাড়া ছোট ভাগে থাকে সালাদ, সামুদ্রিক খাবার ও ফলমূল। (টপ ছবি)
জাপান
দক্ষিণ কোরিয়ার মতো জাপানি শিশুরাও স্কুলে ভালো খাবার পায়। এ তালিকায় রয়েছে হট সুপ, ভাত, মুরগির মাংস বা মাছ, সালাদ ও দুধ। শিশুরা তাদের বাড়ি থেকে খাবার আনার অনুমতি পায় না। (নিচের ছবি)

83-1

যুক্তরাজ্য
আলু ভাজা, গাজর, জাউ ভাত, সালা, ফল, বেলজিয়ান ওয়াফেল কেক ও চকলেট থাকে এ তালিকায়। (নিচের ছবি)

83-2

যুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলের শিক্ষার্থীরা পায় পিচ, ভুট্টা, মুরগি ও সুপ। তবে বিভিন্ন স্কুলের খাবার আলাদা। (নিচের ছবি)

83-3

তুরস্ক
তুরস্কে শিক্ষার্থীরা বাসা থেকে খাবার নিতে পারে। এক্ষেত্রে একটি উদাহরণ হতে পারে রাই ব্রেড, আঙ্গুর, আখরোট বাদাম, আপেল, বেদানা ও দই।
থাইল্যান্ড
থাইল্যান্ডে স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে নানা ধরনের খাবার প্রচলিত রয়েছে। এ তালিকায় রয়েছে মাংস, টক-মিষ্টি সস, ভাত ও কলাপাতায় মোড়া পুডিং।
ফ্রান্স
ফ্রান্সের স্কুলে দেওয়া হয় মাছ, স্পিনাচ, আলু, পনির ও পাউরুটি। তবে শিক্ষার্থীদের মধ্যাহ্নভোজের বিরতি এক থেকে দুই ঘণ্টা দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা চাইলে বাড়ি থেকেও খেয়ে আসতে পারে।
ফিনল্যান্ড
ফিনল্যান্ড সরকার শিশুদের স্কুলের খাবারকে খুবই গুরুত্ব দেয়। এ কারণে তারা স্কুলের শিক্ষার্থীদের খাদ্যতালিকায় রাখে বেশ কিছু খাবার। এছাড়া প্রত্যেক শিক্ষার্থীর জন্য প্রয়োজন অনুযায়ী আলাদা করে মেনু তৈরি করে দেয় তারা। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যগত বিষয় ও ধর্মকে প্রাধান্য দেওয়া হয়। নমুনার এ ছবিতে রয়েছে মিটবল ও সস, আলু, সালাদ ও মুয়েসলি।
রাশিয়া
রাশিয়াতে শিক্ষার্থীরা স্কুলে নানা ধরনের খাবার খেতে পারে। নমুনার এ খাবারটিতে রয়েছে সসেজ, বাজরা জাউ ও চা।
হাঙ্গেরি
হাঙ্গেরিতে শিশুদের বেশ কিছু খাবার দেওয়া হয়। এ খাবারের মধ্যে রয়েছে নুডল সুপ, সীমের বীজের সঙ্গে মুরগি, বাদাম ও পাউরুটি।
ইসরায়েল
ইসরায়েলের খাবারের এ তালিকায় রয়েছে তাজা ফলমূল, গ্রানোলা বার, মিষ্টান্ন ও স্যান্ডউইচ।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com