সৌদি প্রবাসী মেয়ের সেক্স ও ধর্ষণ নিয়ে খোলামেলা বক্তব্য (ভিডিওসহ প্রতিবেদন)

uuu

ভিডিও ডেস্ক : সৌদিতে বাংলাদেশি প্রবাসী এই মাইয়া সেক্স নিয়ে খোলামেলা কথা বলল। আসলেই তার কথা শোনার মত। সে যা বলেছে তার মধ্যে অনেক যুক্তি আছে। ছেলেরা মেয়েদের যন্ত্রণা দেয় বা ছেলেরা ধরে জোর করে বোরখা পরতে বাধ্য করে, এমন বিষয়ে মেয়েটি কিছু দারুণ কথা বলেছে। ছেলেরা শুধু মেয়েদের পোশাকের কারণেই তাদের টিজ করে তা নয়। সৌদি আরবের মেয়েরা তো সবাই বোরখা পরে থাকে তবু সে দেশের মেয়েরা ধর্ষণ বা নির্যাতনের শিকার হয়। সৌদি প্রবাসী এই মেয়ে সেই চিত্র খুব সুন্দরভাবে তুলে ধরেছে। আমাদের দেশের মা বোনেরা কথায় কথায় হয়তো নির্যাতিত হয় না তবে তাঁরা যৌন নির্যাতনের শিকার হয়। যৌন নির্যাতন বা ইভ টিজিং একটি সামাজিক ব্যাধি। এটা সমাজকে নষ্ট করে দেয়। সৌদি নারীরা যারা কিছু টাকা আয়ের জন্যে সেই দেশে যায় তারাও সৌদি পুরুষদের দ্বারা হরহামেশা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। অনেকেই জান বাঁচাতে পালিয়ে গেলেও রক্ষা পাচ্ছে না। সৌদি রক্তগরম ধনাঢ্য মানুষগুলি আমাদের দেশ থেকে যাওয়া নারী গৃহকর্মীদের উপর জোর করে যৌন নির্যাতন করে। এমন কি তাঁরা শারীরিকভাবে তাদের নির্যাতিত করে। মার ধর করা তাদের এক নিত্যদিনের ব্যাপার। সৌদি মেয়েকে বিয়ে করলেই যে এর সমাধান পাবেন তা নয়। বিয়ে একটি প্রথা মাত্র। বিয়ের মধ্যে দিয়ে সৌদিতে স্থায়ী বসবাসের চেয়ে আর ভালো কিছু নাকি নেই। অনেক বাঙালি ছেলে বা যুবক এখন তাই সৌদি মেয়েদের বিয়ে করতে চায়। বিয়ে শাদী করেও সৌদি মেয়েরা পরকীয়া করতে পারে। সৌদি তে পরকীয়া নেই বলে অনেকেই মনে করেন। কিন্তু আসলে সেখানেও আছে এমন কর্ম। সৌদি সরকার ইসলামের আইন চালু করলেও সেই আইন নাকি শুধু সাধারণ জনগণের জন্যে। এই আইন সৌদি রাজ পরিবারের ক্ষেত্রে নাকি অনেক শিথিল। তাহলে মেয়েদের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা কথায় সৌদি সেই যুবকদের হাত থেকে। পালাক্রমে তাঁরা দেশের মেয়ে এবং বাংলাদেশ থেকে যাওয়া মেয়েদের সাথে এমন আচরণ করলে তার শাস্তি কে দিবে? নিষিদ্ধ কাজ সবাই করতে চায়। কিন্তু সৌদি যুবকেরা সেই কাজের প্রতি অন্যদের মতই অনেক আগ্রহী। ইসলামের আইন আছে সৌদি আরবে কিন্তু সেখানে নারী ও পুরুষের ক্ষেত্রে সমান আইন না। নারীরা দমিত ও দলিত। তাঁরা অন্যায় করলে পুরুষরা তাদের কথ্যর সাজা দেয় কিন্তু পুরুষরা সেরকম সাজা পায় না। দুনিয়ার নিয়ম এমন কেন রে ভাই?

(টুডে সংবাদ/উদয়া)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com ভিজিট করুন, লাইক দিন এবং  শেয়ার করুন