যে ধরনের শরীরী ভাষার কারণে মানুষ আপনাকে অবিশ্বাস করতে পারে

21

লাইফস্টাইল ডেস্ক : বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বা শরীরী ভাষার অর্থ এক একজনের কাছে এক একরকমের। কোন অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে কী ধরনের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ হবে, তা নিয়ে ভাবনা-চিন্তার প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু আপনি কি জানেন, শরীরী ভাষার রকমফেরে আপনি মানুষের চোখে বিশ্বাসযোগ্যতা হারাতে পারেন। জেনে নিন, কোন কোন বডি ল্যাঙ্গুয়েজ-এর জন্য মানুষ আপনার প্রতি বিশ্বাস হারাতে পারেন।

• সামনের মানুষের সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে ‘আই কনট্যাক্ট’ না করে কথা বলার অর্থ— আপনি সেই মানুষ এবং তাঁর কথা মন দিয়ে শুনছেন না। এর জন্য মানুষ আপনার কথা বিশ্বাস না-ও করতে পারেন।

• অনেককেই দেখা যায়, পুরো কথা শোনার আগেই মাথা নাড়িয়ে সায় দিতে। তখন যে ব্যক্তি কথা বলছেন, তাঁর ধৈর্য্যচ্যুতি হয় এবং তিনি তাঁর সঙ্গে কথা বলতে আগ্রহী হন না।

• অনেকেই রয়েছেন, যাঁরা কথা বলার সময়ে ট্রাউজারের পকেটে হাত ঢুকিয়ে রাখেন। এর থেকে মনে হতে পারেন আপনি কিছু লুকনোর চেষ্টা করছেন।

• কোনও ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলার সময়ে তাঁর সঙ্গে অতিরিক্ত দূরত্ব বজায় রাখা উচিত নয়। কারণ এর জন্য যাঁর সঙ্গে কথা বলছেন, তাঁর আপনার প্রতি ভরসা নাও থাকতে পারে।

• কথা বলার সময়ে হাতে কোনও বস্তু নিয়ে নাড়াচাড়া করা একটা বদ অভ্যাস। এর জন্য আপনার উল্টো দিকের মানুষটির আপনার কথায় বিশ্বাস নাও করতে পারেন।

• কোনও ব্যক্তির সঙ্গে কথোপকথনের সময়ে হাত মুঠো করে রাখার অর্থ নিজেকে অহংকারী প্রতিপন্ন করা। এতেও উল্টো দিকের মানুষের আপনার কথায় বিশ্বাস নাও হতে পারে।

• চেয়ারে বসে কারোর সঙ্গে কথা বলার সময়ে পায়ের উপরে পা তুলে বসাটা কাম্য নয়।

• দাঁড়িয়ে কথা বলার সময়ে হাঁটা-চলা করা মোটেই আদর্শ বডি ল্যাঙ্গুয়েজ নয়। এতে উল্টোদিকের মানুষটি আপনার কথায় মনোনিবেশ করতে পারবেন না। ফলে সেই ব্যক্তির কথায় বিশ্বাস না-ও হতে পারে।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com