নাক দেখে নিজের নাড়ি-নক্ষত্র জানুন!

noses

নিউজ ডেস্ক: আপনি কি নাক উঁচু? না, না, উন্নাসিক কিনা সেটা জানতে চাইছি না। আপনার নাকটা কেমন দেখতে শুধু সেইটাই জানতে চাইছি। তার কারণ, আপনার নাকটাই বলে দেবে আপনি কেমন মানুষ। তাই এই ব্যাপারে একটু নাক গলিয়ে জেনে নিন নাকের গঠন অনুযায়ী মানুষ কেমন হয়।

১. সোজা, লম্বা নাককে গ্রিক নাক বলা হয়। নাকের দুপাশ পাতলা হয়। এই ধরনের নাক যাদের, তারা খুব প্রতিভাবান হন। যুক্তি দিয়ে কথা বলতে ভালবাসেন এরা। নিজের অনুভূতিকে বড় একটা জাহির করেন না।

২. রোমান নাকের শুরুতেই ছোট একটা কার্ভ থাকে। এই ধরনের নাকের মালিক মানসিকভাবে খুবই দৃঢ় হন। দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। নেতৃত্ব দেওয়ার সহজাত ক্ষমতা থাকে এদের।

৩. ছোট বোতামের মতো নাক। স্ন্যাব নাকের অধিকারী কিছুটা অপরিণত হন। তবে অনেকেই তাদের পছন্দ করেন।

৪. সিলেস্টিয়াল নাকের মাঝ বরাবর ছোট একটা কার্ভ থাকে। নাকের মাথাটা সামান্য উঁচু থাকে। মিশুকে এবং বিশ্বস্ত হন এই ধরনের ব্যক্তিত্ব। এদের যৌন চাহিদা মারাত্মক।

৫. লম্বা এই নাকের গোড়ার দিকটা অনেক চওড়া হয়। নুবিয়ান নাকের অধিকারীদের মধ্যে কৌতূহল বেশি থাকে। খোলা মনের মানুষ হন এরা।

৬. বাজপাখির ঠোঁটের মতো হওয়ায় এই ধরনের নাককে হক নাক বলা হয়। এই নাক যাদের আছে, তারা নিজের মতো করে জীবন কাটাতে ভালবাসেন। নিজেদের আদর্শ নিয়ে চলেন এবং নিজেদের সিদ্ধান্তে দৃঢ় থাকেন এরা।

৭. মাংসল নাক। মোটাসোটা এবং ছড়ানো। আলবার্ট আইনস্টাইন, বিল ক্লিন্টন, প্রিন্স ফিলিপের মতো ব্যক্তিত্ব ফ্লেশি নাকের অধিকারী। ঠিক কেমন চরিত্রের মানুষ এরা। আমরা এদের ঠিক যেমনটা চিনি, তেমনটা হয়ত নাও হতে পারে। নাক দিয়ে যায় চেনা। ফ্লেশি নাকের অধিকারীরা খুব দয়ালু ও অনুভূতিপ্রবণ হন।

৮. ছডানো নাককে বলা হয় রামপোল নাক। নাকের ডগাটা একটু মোটা হয়। এই নাকের অধিকারীরা বাস্তববুদ্ধি সম্পন্ন হন। এই ধরনের মানুষ খুবই এনার্জেটিক হন।

যাক, এবার তাহলে জেনে গেলেন নাকের নাড়ি নক্ষত্র। সুতরাং, মানতেই হবে- নাকের আমি নাকের তুমি নাক, নাক দিয়ে যায় চেনা। (টুডেসংবাদ/এআরএ)