ফ্যাশনেবল ক্লাচ ব্যাগের খোঁজখবর

লাইফস্টাইল ডেস্ক : চারকোণা, ডিম্বাকৃতি, গোলাকৃতি, পানপাতা আকৃতি, বেলুন আকৃতি, তিনকোণা, কাঠের হাতলসহ বাজারে রয়েছে নানা আকারের ক্লাচ ব্যাগ। উপকরণে ব্যবহার করা হয়েছে সার্টিন, গার্মেন্ট ফেব্রিক, সিনথেটিক, লেদার, পাট, রেক্সিনসহ নানা কিছু। নজরকাড়া নকশা ক্লাচ ব্যাগের নানা ডিজাইন নজর কাড়ে খুব সহজেই।

সোনালি, সবুজ, হলুদ, লাল, গোলাপি, বেগুনিসহ রয়েছে নানা রঙের ক্লাচ ব্যাগ। বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে পাওয়া যায় শেডের ক্লাচ ব্যাগও। যার একটি নেওয়া যাবে কয়েকটি পোশাকের সঙ্গে।  তবে জমকালো লং কামিজ, পার্টি পোশাকের সঙ্গে গর্জিয়াস ক্লাচ ব্যাগও মানানসই।

তাছাড়া বর্তমানে জমকালো ক্লাচ ব্যাগের শেপ ঠিক রেখে আর্টিফিশিয়াল লেদার, রেক্সিন, পাটের খুব সিম্পল নকশার কিছু ক্লাচ ব্যাগ বাজারে পাওয়া যায়। এগুলো নেওয়া যায় যে কোনো ধরনের সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে। আবার একেক ধরনের শাড়ির সঙ্গে একেক ধরনের ক্লাচ ব্যাগ মানানসই। অঞ্জন’স, আড়ং, বিবিয়ানাসহ বেশ কিছু ফ্যাশন হাউসে জামদানি, তসর, কাতান কাপড় দিয়ে ডিজাইন করা ক্লাচ পাওয়া যায়।

এগুলো ভালো মানায় তসর, কাতান, বেনারসি, জামদানি শাড়ির সঙ্গে। ক্লাচ ব্যাগ যেমন আভিজাত্যপূর্ণ হয়, তেমনি সাজটিও হওয়া উচিত একটু গর্জিয়াস। একদম সাদামাটা সাজের সঙ্গে হাতে ক্লাচ ব্যাগ ঠিক মানানসই নয়। তবে তাই বলে মেকআপে মুখখানি ভরে ফেলতে হবে, তা কিন্তু নয়। বেইজ মেকআপটা হালকাই করুন। তবে চোখটা একটু সাজাতে পারেন।

যদি দিনের সাজ হয় তাহলে হালকা শ্যাডো কিংবা শুধু আইলাইনার আর রাতের সাজে একটু গাঢ় শেডের শ্যাডো, গ্লিটার শ্যাডো ব্যবহার করতে পারেন। এ ক্ষেত্রে হেয়ার স্টাইলে কোনো বাছবিচার নেই। আপনার পছন্দমতো যে কোনো স্টাইলেই হেয়ার সেট করতে পারেন। তবে বর্তমানে স্ট্রেইট, রোলার, এলোমেলো নানা ধরনের বেণি চলছে। করতে পারেন এসবও।

দরদাম
স্টোনের ক্লাচ ব্যাগ পাওয়া যাবে ৮০০-২০০০ টাকায়, পার্ল বসানো ক্লাচ ব্যাগ ২৫০০-৪০০০ টাকা, কাতান কাপড়ের ৬০০-১২০০ টাকা, জামদানি কাপড়ের ৮০০-১৫০০ টাকা, পুঁতি, পাট, চুমকি, অন্টিকের নকশা করা ক্লাচ ব্যাগ ৫০০-১০০০ টাকায়, বিবিয়ানা, বাংলার মেলা, অঞ্জন’সে কাতান কাপড়ের ক্লাচ ব্যাগ পাওয়া যাবে ৪০০-৯০০ টাকায়, মায়াসিরে বেনারসি, সিল্ক, তসর কাপড়ের লেইস বসানো ক্লাচ ব্যাগ ১০০০-২৫০০ টাকা।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com