নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণের আভাস, ফাঁকা মাঠে গোল দিতে দেবে না বিএনপি

হাবিবুর রহমান খান : আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে সরকারের মনোভাবের দিকে তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রাখছে মাঠের বিরোধী দল বিএনপি। নির্বাচন নিয়ে সরকার কী ভাবছে বা তাদের বিশেষ কোনো পরিকল্পনা রয়েছে কিনা, সেই ব্যাপারে খোঁজখবর নিতে সিনিয়র কয়েক নেতাকে নির্দেশ দিয়েছেন চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। হাইকমান্ডের এমন নির্দেশ পেয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা এ বিষয়ে খোঁজখবর নিতে শুরু করেছেন। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণের যে আভাস লক্ষ করা যাচ্ছে সে ব্যাপারেও সতর্ক দৃষ্টি রাখছেন তারা। সরকার আগাম বা নির্ধারিত সময়ে যখনই নির্বাচন দিক, এবার ফাঁকা মাঠে তাদের গোল দিতে দেবে না দলটি। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে এসব তথ্য।

আরও জানা গেছে, জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখে সম্প্রতি দলের সিনিয়র কয়েক নেতার সঙ্গে আলোচনা করেন খালেদা জিয়া। ওই নেতাদের কাছে জানতে চান, জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আপনাদের কাছে কোনো তথ্য আছে কিনা। ওই সময় উপস্থিত নেতারা জানান, তাদের কাছে এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই। সরকার আগাম নির্বাচন দেয়ার চিন্তাভাবনা করছে বলে বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। সংসদ নির্বাচন নিয়ে সরকারের মনোভাব কী বা তাদের কোনো কৌশল রয়েছে কিনা, সে ব্যাপারে তীক্ষন দৃষ্টি রাখতে উপস্থিত নেতাদের নির্দেশ দেন খালেদা জিয়া। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের আগাম নির্বাচনী প্রচারের বিষয়টি নিয়েও দলের শীর্ষপর্যায়ের মধ্যে আলোচনা চলছে। জাতীয় পার্টির আগাম নির্বাচনী প্রচারের পেছনে ক্ষমতাসীন দলের কোনো কৌশল রয়েছে কিনা, সেই ব্যাপারেও নজর রাখছে দলটি।

জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে বিএনপি আন্দোলন করছে। আগামী নির্বাচনে জনগণ যাতে অবাধে ভোট দিতে পারে তা নিশ্চিত করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। সরকার দ্রুত সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের উদ্যোগ নেবে বলে আমরা আশা করি।

তিনি বলেন, দলের সিনিয়র নেতাদের মামলাগুলোর কার্যক্রম দ্রুত চলায় অনেকের মনেই নানা প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে। বিএনপিকে বাইরে রেখে আবারও ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচন করতে চাইলে সরকার ভুল করবে। আগামী নির্বাচন এবং নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনসহ সরকারের সার্বিক কর্মকাণ্ডের ওপর আমাদের নজর থাকবে। জনগণের মতামতকে উপেক্ষা করে সরকার কিছু করতে চাইলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এর প্রতিবাদ করা হবে বলে জানান বিএনপির এ নেতা।

বিএনপির এক নীতিনির্ধারক জানান, সরকার আগাম বা নির্ধারিত সময়ে নির্বাচন নিয়ে কী ভাবছে সেটাই আমাদের কাছে এ মুহূর্তে গুরুত্বপূর্ণ। সিনিয়র নেতাদের নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করে সুবিধাজনক সময়ে সরকার একটা নির্বাচনের চেষ্টা চালাতে পারে। তবে সরকারের সেই কৌশল যাতে সফল না হয় তা নিয়েও বিকল্প চিন্তা রয়েছে।

ওই নেতা আরও বলেন, নির্বাচন নিয়ে রাজনীতিতে যে মেরুকরণের আভাস পাওয়া যাচ্ছে সেদিকে তাদের নজর রয়েছে। পরিস্থিতির কারণে দলের পক্ষ থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত এলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। কারণ আমাদের প্রধান লক্ষ্য আগামী নির্বাচন।

জানতে চাইলে বিএনপির মুখপাত্রের দায়িত্বে থাকা দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সিনিয়র নেতাদের নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করে সরকার একটি আগাম নির্বাচন দিতে পারে- বাজারে এমন একটি গুঞ্জন রয়েছে। আমরাও বিষয়টিকে উড়িয়ে দিচ্ছি না। কারণ রাজনৈতিক নেতাদের মামলা এত দ্রুত নিষ্পত্তি হওয়ার নজির নেই। নির্বাচনের আগে ক্রাইসিস সৃষ্টি করে সেখান থেকে সরকার সুবিধা নিতে পারে।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে সরকার কী ভাবছে সেদিকে আমাদের তীক্ষ্ণ দৃষ্টি রয়েছে। নির্বাচন নিয়ে সরকারের কোনো কৌশল রয়েছে কিনা, সে ব্যাপারে খোঁজখবর রাখছি। সরকারের কৌশলের পাল্টা কৌশল নিতে আমরা প্রস্তুত আছি। এবার আমরা কোনোকিছুই বিনা চ্যালেঞ্জে ছেড়ে দেব না।

শনিবার রাতে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী। রোববার দুপুরে তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনের জন্য সব সময় প্রস্তুত। সরকার কখন নির্বাচন দেবে বা এ নিয়ে তাদের কী পরিকল্পনা আছে সেটা তাদের ব্যাপার। আমরা মধ্যবর্তী নির্বাচন চাই না। আমরা চাই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। সেটা সরকার আগামী মাসে করতে চাইলেও আমরা প্রস্তুত আছি। তবে সেই নির্বাচন হতে হবে নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

তিনি বলেন, দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সিনিয়র নেতাদের নামে মিথ্যা মামলাগুলো দ্রুত বিচার কাজ শেষ করা হচ্ছে। এর পেছনে সরকারের কোনো কৌশল রয়েছে কিনা সেদিকে আমাদের নজর রয়েছে। জাতীয় নির্বাচন বা রাজনীতিতে নতুন মেরুকরণ সবকিছুই আমরা পর্যবেক্ষণ করছি।

(টুডে সংবাদ/উদয়া)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com ভিজিট করুন, লাইখ দিন এবং  শেয়ার করুন