অফিসের ৭ অস্বাস্থ্যকর অভ্যাস যা আপনারও আছে

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কর্মজীবীদের দিনের বেশির ভাগ সময় অফিসে কাটাতে হয়। দিনের বেশির ভাগ সময় অফিসে কাটানোর কারণে আমরা এমন কিছু কাজ করে থাকি যা অফিসে করা একদমই উচিত নয়। এই কাজগুলো  আপাত দৃষ্টিতে  অস্বাস্থ্যকর মনে না হলেও আসলে আমাদের স্বাস্থ্যের ওপর অনেক খারাপ প্রভাব ফেলে থাকে। আসুন জেনে নিই এমন কিছু বদ অভ্যাসের কথা যা আমাদের সবার মাঝেই কম বেশি আছে-

১। বাথরুমের ব্যবহার

অফিসের বাথরুমটি আপনার ব্যক্তিগত বাথরুম নয়। অফিসের সবাই এই বাথরুম ব্যবহার করেন। এই কথাটি অনেকেই মনে রাখেন না। বাথরুম ব্যবহার পর তা ভালমত পরিষ্কার করুন। আবার অনেকেই বাথরুম ব্যবহারের পর হাত ধুয়ে নেন না। শুধু টিস্যু পেপারে হাত মুছে থাকেন। এই অভ্যাসটি আপনাকে অসুস্থ করে তুলতে পারে। এক অফিসের বাথরুম একাধিক মানুষ ব্যবহারের করে থাকে। আপনি ব্যবহারের ফলে আপনার হাত হাতে জীবাণুতে ভরে যায়। সাবান দিয়ে ভাল করে হাত না ধুলে সেই জীবাণু আপনার হাতেই থেকে যায়।

২। সারাদিন একটানা চেয়ারে বসে থাকা

বেশির ভাগ অফিসে দীর্ঘ সময় চেয়ারে বসে থাকতে হয়। একটানা বসে থাকা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। গবেষণায় বলা হয়েছে ৩০ থেকে ৯০ মিনিট পর পর চলাফেরা করা উচিত। চেয়ার থেকে উঠে কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করুন। বেশিক্ষণ একভাবে বসে থাকলে শরীরে চর্বি জমতে শুরু করে। এছাড়া পিঠে ব্যথা, কোমর ব্যথা মেরুদন্ডের সমস্যা দেখা দেয়।

৩। পানি কম খাওয়া

এক কাজটি আমরা প্রায় সবাই করি। কাজের চাপে আমরা প্রয়োজনমতো পানি খাওয়ার কথা ভুলে যাই। পানি শরীরের রক্তচলাচল স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। পানি ঠিকমত খাওয়া না হলে শরীরের নানা সমস্যা দেখা দেয়।

৪। চোখ ঘষা

কম্পিউটারের সামনে অনেকক্ষণ বসে থাকার কারণে অনেক সময় চোখ জ্বলতে শুরু করে। আর আমরা নোংরা হাত দিয়ে চোখ ডলে থাকি। এর ফলে হাতের লক্ষাধিক জীবাণু চোখে গিয়ে চোখকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

৫। ডেস্কে বসে খাওয়া

কাজের চাপে আমরা অনেকেই ডেস্ক ছেড়ে উঠতে চাই না, এমনকি দুপুরের খাবারটিও আমরা নিজের ডেস্কে বসে খেয়ে নিই। এতে করে আপনার ডেস্কে প্রচুর পরিমাণে জীবাণু ছড়িয়ে পড়ে।খাওয়ার সময়টাতে পরিবেশ পরিবর্তন হওয়ার প্রয়োজন।

৬। সারাদিন অফিসের ভিতরে থাকা    

অনেকেই আছেন যারা অফিসে একবার প্রবেশ করলে অফিস শেষ না হওয়া পর্যন্ত বাইরে বের হন না। আপনার যদি এই অভ্যাস থেকে থাকে, তবে আজই পরিবর্তন করুন। কাজের মাঝে কিছুক্ষণ অফিসের বাইরে থেকে ঘুরে আসুন। এটি আপনার স্বাস্থ্য এবং মন উভয়ের  জন্য ভাল।

৭। অতিরিক্ত গান শোনা

এটা ঠিক গান মন ভাল করে মনকে শান্ত রাখে। কিন্তু সারাদিন গান শোনা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। ইয়ারফোন কান এবং মস্তিষ্কের ক্ষতি করে থাকে।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com