শখের কসমেটিকসের যত্নআত্তি

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কসমেটিকসের মাধ্যমে নিজেকে সুন্দর করে তোলা যায় আজ সহজেই। তবে এর এক্সপায়ার ডেট জানা খুব প্রয়োজন। যেমন পচা খাবার খেলে শরীর খারাপ হয়, ঠিক তেমনি নষ্ট হয়ে যাওয়া কসমেটিকস লাগালে নানা সমস্যা দেখা দেয়। কসমেটিকসের কিছু জিনিস খেয়াল রাখলে বোঝা যায়, কোনটি নষ্ট হয়ে গেছে। কীভাবে বুঝবেন জেনে নিন-

ফাউন্ডেশন মাখলে যদি গালে না বসে, কিংবা ঘোলাটে দেখায় এমনকি শক্ত হয়ে যায়, তখন বুঝবেন এর সময় শেষ। তাই ফাউন্ডেশন ব্যবহার করার সময় কখনও আঙ্গুল ঢোকাবেন না বোতলে। পরিমাণ মতো হাতে বা অন্য কিছুতে ঢেলে ত্বকে অ্যাপ্লাই করুন।

পেন্সিল লাইনার যদি শক্ত হয়ে যায়, ভেঙ্গে যায় এবং আঁকতে অসুবিধা হয় তখন বুঝবেন সেটা নষ্ট হয়ে গেছে। তাই প্রতিবার ব্যবহারের আগে শার্প করে নিলে ব্যাক্টেরিয়ার হাত থেকে রক্ষা পাবেন।

মাসকারা ব্যবহার করার সময় যদি দেখেন দলা পাকিয়ে যায়, তখন বুঝবেন সেটি বিদায় করার সময় হয়ে গেছে।

বাইরের বাতাস বোতলের ভেতরে ঢুকে গেলে মাসকারা নষ্ট হয় তাড়াতাড়ি। তাই ব্যবহারের আগে ব্রাশ বোতলের ভিতরে ঘুরিয়ে নিন।

ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার বেশি পাতলা বা গাঢ় হয়ে গেলে বুঝবেন নষ্ট হয়ে গেছে। আর এগুলো প্রতিদিনই ত্বকে ব্যবহার করা হয়। এর ফলে ত্বকে র্যানশ কিংবা ব্রণের মতো একাধিক সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।

নেলপলিশ গাঢ় হলেই বুঝবেন ফেলে দেয়ার সময় এসেছে। তাই বোতলের মুখ টাইট করে বন্ধ করে রাখুন। বাইরের বাতাস ঢুকে নেলপলিশ গাঢ় হয়ে যায়।

লিপস্টিকে পানির পরিমাণ কম থাকায় সহজে খারাপ হয় না। তবে দুর্গন্ধ বের হলে বুঝবেন নষ্ট হয়ে গেছে।

ব্লাশ অনের রঙ বদলে গেছে কিংবা শক্ত হয়ে ভাঙ্গতে শুরু করলে বুঝবেন যে এটাও নষ্ট হয়ে গেছে। দীর্ঘদিন ঠিক রাখতে চাইলে এটাকে শুকনো রাখার চেষ্টা করুন। খেয়াল রাখবেন ব্যবহার করা ব্রাশ বা স্পঞ্জটি যেন ভিজে বা অপরিষ্কার না থাকে।

মেকআপ স্পঞ্জ প্রতিবার ব্যবহারের পর ভালো করে ধুয়ে রাখুন।

মেকআপ ব্রাশ ব্যবহার করার পর পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। ব্রাশের কোনো সময়সীমা নেই। তাই ভালো ব্রান্ডের ব্রাশ হলে এবং যথাযথ যত্ন নিলে বহুদিন চলবে।

(টুডে সংবাদ/মেহেদী)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com