অনন্য নাথান লায়ন, ২০০ উইকেটের মাইলফলক!

স্পোর্টস ডেস্ক : টেস্ট ক্রিকেটে ২০০ উইকেটপ্রাপ্তি তেমন আহামরি কোনো কীর্তি নয়। অনেকেই স্পর্শ করেছেন এই মাইলফলক। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে নাথান লায়ন ২০০ উইকেট পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ১৬তম বোলার হিসেবে। তবে একদিক দিয়ে লায়ন হয়ে উঠেছেন সত্যিই অনন্য। তিনিই অস্ট্রেলিয়ার প্রথম অফস্পিনার, যিনি স্পর্শ করতে পেরেছেন এই ২০০ উইকেটের মাইলফলক।

লায়নের আগে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২০০ উইকেট নিতে পেরেছেন মাত্র চারজন স্পিনার। মজার ব্যাপার হলো, তাঁরা সবাই ছিলেন লেগস্পিনার। প্রথমজনের নাম ক্লারি গ্রিমেট। ১৯৩৬ সালে মাত্র ৩৬টি টেস্ট খেলেই ২০০ উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। সবচেয়ে কম টেস্ট খেলে ২০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শের রেকর্ডটি এখনো আছে গ্রিমেটের দখলে। ১৯৬১ সালে গ্রিমেটের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন রিচি বেনো। ১৯৯৫ সালে ২০০ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন সর্বকালের অন্যতম সেরা লেগস্পিনার শেন ওয়ার্ন। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সবচেয়ে বেশি, ৭০৮টি উইকেট শিকারের রেকর্ড এখনো আছে ওয়ার্নের দখলে। আর ২০০৭ সালে ওয়ার্ন-বেনো-গ্রিমেটদের পাশে বসতে পেরেছিলেন আরেক লেগস্পিনার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিল।

ওয়ার্ন-বেনোদের দেশে অফস্পিনারদের দেখা যায়নি খুব বেশি সফল ভূমিকায়। ফলে অস্ট্রেলিয়ান অফস্পিনারদের জন্য এখন আদর্শই হয়ে উঠতে পারেন লায়ন। তাঁর আগে অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সফল অফস্পিনার ছিলেন হিউজ ট্রাম্বল। ১৮৯০ থেকে ১৯০৪ সাল পর্যন্ত ৩২টি টেস্ট খেলে তিনি নিয়েছিলেন ১৪১ উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার অফস্পিনারদের মধ্যে ১০০ উইকেট নিতে পেরেছেন আর মাত্র তিনজন। অ্যাশলে ম্যালেট (১৩২), ব্রুস ইয়ার্ডলি (১২৬) ও ইয়ান জনসন (১০৯)।

শুধু অস্ট্রেলিয়াতে নয়, এশিয়ার বাইরের খুব কম বোলার স্পর্শ করতে পেরেছেন টেস্টে ২০০ উইকেটের মাইলফলক। লায়নের আগে এই অবস্থানে দেখা গেছে মাত্র দুজনকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ল্যান্স গিবস (৩০৯) ও ইংল্যান্ডের গ্রায়েম সোয়ান (২৫৫)।

(টুডে সংবাদ/তা.সু.পি)

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে www.todaysangbad.com ভিজিট করুন এবং

লেখাটি ভালো লাগলে লাইখ দিন এবং  শেয়ার করুন